৫০ রাজনীতিক ব্যবসায়ী আমলাকে নোটিশ

72

৫০ রাজনীতিক ব্যবসায়ী আমলাকে নোটিশ

সম্পদের হিসাব ৭২ ঘণ্টার মধ্যে ৷৷ দুদকের তালিকায় সাবেক ১২ মন্ত্রী, ২৩ এমপি, ৩ ব্যবসায়ী ও ২ আমলা

১২ জন সাবেক মন্ত্রী, ২৩ সাবেক এমপি, শীর্ষস্থানীয় ৩ জন ব্যবসায়ীসহ ৫০ জনকে নোটিশ পাওয়ার ৭২ ঘণ্টার মধ্যে তাদের স্থাবর-অস্থাবর সম্পদের হিসাব দুনর্ীতি দমন কমিশনে (দুদক) দাখিল করার জন্য নির্দেশ দেওয়া হয়েছে৷ নির্ধারিত সময়ের মধ্যে হিসাব দাখিল না করলে তাদের সম্পত্তি ক্রোক, বাজেয়াপ্ত করাসহ আইনগত পদক্ষেপ নেওয়া হবে৷ গতকাল রোববার দুদক এই নোটিশ জারি করে৷ জ্ঞাত আয় বহিভর্ূত বিপুল পরিমাণ সম্পদ আহরণ করেছেন এমন কয়েকশ লোকের তালিকা দুদক প্রাথমিকভাবে তৈরি করেছে৷ এর মধ্যে গতকাল ৫০ জনের নাম প্রকাশ করে নোটিশ দেওয়া হয়েছে৷ নোটিশপ্রাপ্তদের মধ্যে আওয়ামী লীগের সাবেক মন্ত্রী-এমপি ও দলীয় নেতা রয়েছেন ১৮ জন, বিএনপির সাবেক মন্ত্রী-এমপি ও নেতা রয়েছেন ২৪ জন ,জামাতের রয়েছেন সাবেক একজন এমপি, ইসলামী ঐক্যজোটের সাবেক একজন এমপি, সাবেক সচিব রয়েছেন একজন, বিএনপি ঘরানার সিবিএর দুজন নেতা, এনবিআরের সাবেক একজন ঊধর্্বতন কর্মকর্তা আর শীর্ষস্থানীয় ব্যবসায়ী রয়েছেন দুই জন৷ ৫০ জনের নামে ব্যক্তিগতভাবে নোটিশ জারি করার পর পত্রপত্রিকাতেও গণবিজ্ঞপ্তি জারি করা হয়েছে৷
নোটিশপ্রাপ্তরা হলেন আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক মন্ত্রী মোহাম্মদ নাসিম, বিএনপি নেতা সাবেক মন্ত্রী ব্যারিষ্টার নাজমুল হুদা, বিএনপি নেতা সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার সংসদ বিষয়ক উপদেষ্টা সালাউদ্দিন কাদের চৌধুরী, বিএনপি নেতা সাবেক মন্ত্রী মির্জা আব্বাস, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক চিফ হুইপ আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ , সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব হারিছ চৌধুরী, সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার পুত্র তারেক রহমানের ব্যবসায়িক পার্টনার গিয়াস উদ্দিন আল মামুন , সাবেক প্রধানমন্ত্রী খালেদা জিয়ার রাজনৈতিক সচিব মোসাদ্দেক আলী ফালু, নারায়ণগঞ্জের সাবেক আওয়ামী লীগ সাংসদ শামীম ওসমান, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক মন্ত্রী ইঞ্জিনিয়ার মোশাররফ হোসেন, চট্টগ্রামের আওয়ামী লীগ নেতা আখতার\”জ্জামান চৌধুরী বাবু, বিএনপি নেতা সাবেক মন্ত্রী তরিকুল ইসলাম, আওয়ামী লীগ নেতা বিশিষ্ট ব্যবসায়ী সালমান এফ রহমান, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী মোফাজ্জল হোসেন চৌধুরী মায়া, বিএনপি নেতা সাবেক এমপি ও বিসিবি সভাপতি আলী আসগর লবী, যুবলীগ সভাপতি জাহাঙ্গীর কবির নানক, সাবেক এমপি আওয়ামী লীগ নেতা ডা.এইচ বি এম ইকবাল , বিএনপি নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী আমানুল্লাহ আমান, আওয়ামী লীগ থেকে বহিষ্কৃত ফেনীর সাবেক এমপি জয়নাল হাজারী, বিএনপি নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী মীর মোহাম্মদ নাছির উদ্দিন, সাবেক প্রতিমন্ত্রী বিএনপি নেতা সালাউদ্দিন আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক হুইপ এস এম মোসত্মফা রশিদী সুজা, বিএনপি নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী ইকবাল হাসান মাহমুদ টুকু, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক প্রতিমন্ত্রী মহীউদ্দীন খান আলমগীর, যুবলীগ সাধারণ সম্পাদক সাবেক এমপি মির্জা আজম, বিএনপি নেতা সাব্কে প্রতিমন্ত্রী র\”হুল কুদ্দুস তালুকদার দুলু, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক এমপি আ হ ম মোসত্মফা কামাল (লোটাস কামাল), বিএনপি নেতা সাবেক এমপি নাসির উদ্দিন আহমেদ পিন্টু, আওয়ামী লীগ নেতা সাব্কে এমপি হাজী সেলিম, বিএনপি নেতা সাবেক এমপি সালাউদ্দিন আহমেদ, আওয়ামী লীগ নেতা সাবেক এমপি আলহাজ মকবুল হোসেন, বিএনপি নেতা ও ঢাকা সিটি করপোরেশনের ওয়ার্ড কমিশনার চৌধুরী আলম, বিএনপি নেতা সাবেক এমপি হাফিজ ইব্রাহীম, বিএনপি নেতা ও সাবেক এমপি আব্দুল ওয়াদুদ ভূইয়া, নারায়ণগঞ্জের বিএনপি নেতা ও সাবেক এমপি মোঃ গিয়াস উদ্দিন, ইসলামী ঐক্যজোট নেতা সাবেক এমপি মুফতি শহীদুল ইসলাম, সাবেক এমপি বিএনপি নেতা এম রশিদুজ্জামান মিল্লাত, জামাত নেতা সাবেক এমপি শাহজাহান চৌধুরী, বিএনপি নেতা সাবেক এমপি ইঞ্জিনিয়ার মঞ্জুর\”ল আহসান মুন্সী, আওয়ামী স্বেচ্ছা সেবক লীগের সাধারন সম্পাদক পংকজ দেবনাথ, ঢাকা সিটি করপোরেশনের ২১ নং ওয়ার্ড কমিশনার মোঃ আব্দুল কাইয়ুম, সিলেট মহানগর বিএনপি সভাপতি ও সিটি করপোরেশনের কমিশনার আরিফুল হক চৌধুরী, সাবেক অর্থমন্ত্রী সাইফুর রহমানের ছেলে সাবেক এমপি এম নাসের রহমান, মুন্সীগঞ্জ জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি মহিউদ্দিন আহমেদ, যমুনা গ্র\”পের চেয়ারম্যান শিল্পপতি নুর\”ল ইসলাম বাবুল, সাবেক বিদু্যত্‍ সচিব আ ন হ আখতার হোসেন, বসুন্ধরা গ্র\”পের চেয়ারম্যান শিল্পপতি আহমেদ আকবর সোবহান (শাহ আলম), এনবিআরের সাবেক সদস্য জহুর\”ল হক, সোনালী ব্যাংকের সিবিএ নেতা বিএম বাকির হোসেন, টিএন্ডটি সিবিএর সভাপতি মোঃ ফিরোজ মিয়া৷
নোটিশ প্রাপ্ত ৫০ জনের মধ্যে ২২ জন কারাগারে আটক আছেন৷ বর্তমান তত্ত্বাবধায়ক সরকার দায়িত্ব গ্রহণের পর যৌথবাহিনী তাদের গ্রেপ্তার করে৷ দুনর্ীতি দমন কমিশন প্রাথমিক অনুসন্ধানে নিশ্চিত হয়েছে উলি্লখিত ব্যক্তিরা জ্ঞাত আয় বহিভর্ূত বিপুল পরিমাণ সম্পদের মালিক হয়েছেন৷
দুনর্ীতি দমন কমিশনের সচিব মোঃ দেলোয়ার হোসেন গতকাল বিকেলে এক প্রেস ব্রিফিং করে বলেন, প্রাথমিক অনুসন্ধান করে মনে হয়েছে উলি্লখিত ব্যক্তিরা জ্ঞাত আয় বহিভর্ূত বিপুল সম্পদের মালিক হয়েছেন৷ সরকারের বিভিন্ন গোয়েন্দা সংস্থা , এনবিআর, সংবাদপত্রসহ বিভিন্ন মাধ্যম থেকে তথ্য সংগ্রহ করে মাসাধিককাল অনুসন্ধান করে এই তালিকা তৈরি করা হয়েছে বলে সচিব জানান৷ তিনি বলেন, আজ ৫০ জনের নাম প্রকাশ করা হলো এবং নোটিশ দেওয়া হলো৷ এটা মাত্র শুর\”৷ আরো সহস্রাধিক ব্যক্তির তালিকা করা হয়েছে৷ পর্যায়ক্রমে তাদেরকেও নোটিশ দেওয়া হবে এবং নাম প্রকাশ করা হবে৷ দুদক সচিব জানান নোটিশ প্রাপ্তির ৭২ ঘণ্টার মধ্যে সংশ্লিষ্টদের দুনর্ীতি দমন কমিশনের প্রধান কার্যালয়ে হাজির হয়ে তাদের সম্পদের হিসাব দাখিল করতে হবে৷ কারাগারে যারা আটক আছেন তারা তাদের বৈধ প্রতিনিধির মাধ্যমে এই হিসাব দাখিল করবেন৷ ৭২ ঘণ্টার মধ্যে যারা হিসাব দাখিল করবেন না তাদের বির\”দ্ধে আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা অর্থাত্‍ ম্যাজিস্ট্রেটের আদেশে সম্পত্তি ক্রোক করা হবে এবং মামলা দায়ের করা হবে৷ আর নোটিশ প্রাপ্তির ৭২ ঘণ্টার মধ্যে যারা হিসাব দাখিল করবেন তাদের হিসাবের সত্যতা যাচাই করার জন্য অনুসন্ধান করা হবে৷ যদি মিথ্যা তথ্য পাওয়া যায় তা হলে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে৷ সচিব জানান, জর\”রি ক্ষমতা অধ্যাদেশ ২০০৭ এর সংশোধিত বিধিমালার ১৫ঘ(১) ১৫ঘ(২) এবং দুনর্ীতি দমন কমিশন আইন ২০০৪ এর ১৮ ও ২৬(১) ধারার বিধান ও ক্ষমতাবলে এই নোটিশ দেওয়া ৷ যারা কারাগারে আটক আছেন তাদের কারাগারের ঠিকানায় এবং যারা কারাগারের বাহিরে আছেন তাদের বাসাবাড়ির ঠিকানায় কমিশনের নিজস্ব লোকের মাধ্যমে নোটিশ পেঁৗছে দেওয়া হবে৷ রোববার বিকেল থেকেই নোটিশ পাঠানো শুর\” হয়ে গেছে বলে তিনি জানান৷ তিনি জানান পর্যায়ক্রমে আরো তালিকা প্রকাশ করা হবে ৷ তালিকায় আরো কতোজনের নাম রয়েছে জানতে চাইলে তিনি সবার নাম এ মুহূর্তে প্রকাশ না করে বলেন, সহস্রাধিক হবে৷ দুদকের চার জন পরিচালকের কাছে নোটিশ প্রাপ্তরা সশরীরে হাজির হয়ে হিসাব দাখিল করার জন্য বলা হয়েছে৷ যারা কারাগারে আটক আছেন তাদের বৈধ প্রতিনিধির মাধ্যমে এই হিসাব দাখিল করতে হবে৷ দুদকের চারজন পরিচালককে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে তালিকাভুক্তদের সম্পদের হিসাব সংগ্রহের ৷ এই চার পরিচালক হলেন তানকিন হক সিদ্দিকী, আব্দুল ওয়াদুদ, জাহানারা পারভিন, নাসরিন আরা সুরাত আমীন৷
সচিব জানান নোটিশ প্রাপ্তির পর নির্ধারিত সময়ের মধ্যে যারা সম্পদের বিবরণ দাখিল করবেন না তাদের বির\”দ্ধে জর\”রী ক্ষমতা আইনের বিধি অনুযায়ী সম্পত্তি ক্রোকসহ বাজেয়াপ্ত করা হবে৷ তবে পাবলিক লিমিটেট কোম্পানি এবং আর্থিক প্রতিষ্ঠানগুলো যাতে বন্ধ হয়ে না যায় এ জন্য সেগুলোতে রিসিভার বা প্রশাসক নিয়োগ করা হবে৷
অবশিষ্ট তালিকা কবে প্রকাশ করা হবে জানতে চাইলে সচিব জানান যতোদিন পর্যনত্ম দুদক মনে করবে দুনর্ীতিবাজদের তালিকা শেষ হয়নি ততোদিন এই তালিকা তৈরি করা হবে এবং প্রকাশ করা হবে৷

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out /  Change )

Google photo

You are commenting using your Google account. Log Out /  Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out /  Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out /  Change )

Connecting to %s

This site uses Akismet to reduce spam. Learn how your comment data is processed.