ছাত্রলীগ নেতা নিহতের প্রতিবাদে বিক্ষোভ মিছিল

মুন্সীগঞ্জের গজারিয়ার উপজেলার হোসেন্দী ইউনিয়নে সোমবার রাতে আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী ও স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকদের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনায় হানিফ মিয়া (২৭) নামে এক ছাত্রলীগ নেতা নিহত হয়েছে, এঘটনায় আহত হয়েছে আরো ৫ জন।

নিহত হানিফ হোসেন্দী ইউনিয়নের লসকদী গ্রামের নাজিমুদ্দিনের ছেলে। সে হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার স¤পাদক ছিল বলে জানিয়েছেন হোসেন্দী ইউনিয়ন ছাত্রলীগ সভাপতি রাজীব ঘোষ।

কর্মী নিহত হওয়ার প্রতিবাদে মঙ্গলবার দুপুরে জামালদি-গজারিয়া সড়কে বিক্ষোভ মিছিল করেছে নিহতের স্বজন ও ছাত্রলীগের নেতা কর্মীরা। বিক্ষোভ মিছিল থেকে তারা হত্যাকান্ডের জড়িতদের দ্রুত গ্রেফতার করে আইনের আওতায় এনে বিচারের দাবী জানান।

জানা যায়, হোসেন্দী ইউনিয়নে স্বতন্ত্র চেয়ারম্যান প্রার্থী মাহাবুবুল হক মজনুর পক্ষে নির্বাচনী প্রচারনা চালাতে সোমবার সন্ধ্যায় গজারিয়ায় আসা মুন্সীগঞ্জ শহর শাখা ছাত্রলীগের তিন নেতা কর্মীকে শারীরিকভাবে লাঞ্চিত করে নৌকা প্রতীকের প্রার্থী মনিরুল হক মিঠুর সমর্থকরা। এ খবর জানার পর মাহাবুবুল হক মজনুর সমর্থকরা নৌকা প্রতীক প্রাপ্ত প্রার্থী মনিরুল হক মিঠুর লসকদী গ্রামের নির্বাচনী ক্যা¤েপ হামলা চালায়।

এ সময় তারা নির্বাচনী ক্যা¤েপ থাকা আসবাপত্র, প্রচারণার জন্য বাঁশ দিয়ে বানানো নৌকা, দেয়ালে সাটানো বঙ্গবন্ধু ও শেখ হাসিনার ছবি ভাংচুর করে।এ ঘটনার জের ধরে উভয় পক্ষের মধ্যে কয়েক দফা সংঘর্ষ ও গুলি বিনিময়ের ঘটনা ঘটে। এ সময় মাথায় গুলিবিদ্ধ হয় ইউনিয়ন ছাত্রলীগের প্রচার স¤পাদক মোঃহানিফ মিয়া (২৭)। আহত অবস্থায় তাকে দ্রুত হাসপাতালে নেওয়া হলে টিকিৎসাধীন অবস্থায় রাত সাড়ে ১০টার ঢাকা মেডিকেল কলেজে তার মৃত্যু হয়। নিহত হানিফ আওয়ামী লীগ সমর্থিত প্রার্থী মনিরুল হক মিঠুর কর্মী ছিল বলে জানা যায়।এছাড়াও সংঘর্ষের ঘটনায় উভয় পক্ষের ৫ সমর্থকের আহত হবার খবর পাওয়া গেছে। আহতের বিভিন্ন হাসপাতালে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।আহতের মধ্যে শরিফ(২৫) নামে একজনের নাম জানা গেছে।

এদিকে এলাকাবাসীর অভিযোগ পুলিশের নিরবতার জন্যই সহিংসতা ও প্রাণহানির ঘটনা ঘটেছে। তবে এসব অভিযোগ অস্বীকার করে পুলিশের পক্ষ থেকে জানানো হয় পরিস্থিতি সামলাতে পুলিশ ১৩১টি শটগানের গুলি ছোড়ে এবং সাতটি টিয়ার সেল নিক্ষেপ করে। সংঘর্ষের সময় ইট-পাটকেলের আঘাতে পাঁচজন পুলিশ সদস্যও আহত হয়েছে।

এ ব্যাপারে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর পক্ষ থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে মঙ্গলবার সকাল সোয়া এগারোটায় সাংবাদিকদের সাথে কথা বলেন, র্যা ব-১১ এর এ এস পি মশিউর রহমান। ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে তিনি জানান, বর্তমান পরিস্থিতি শান্ত তবে অপ্রীতিকর ঘটনা এড়ানোর জন্য হোসেন্দী ইউনিয়নে আইন শৃঙ্খলা বাহিনী বিপুল পরিমান সদস্য মোতায়েন রয়েছে। আর এ ব্যাপারে থানায় এখনও কোন মামলা হয়নি। তবে তদন্ত সাপেক্ষে হত্যাকান্ডে জড়িতদের খুজে বের করে আইনের আওতায় আনা হবে।

এদিকে দুপুরে মুন্সীগঞ্জ পুলিশ সুপার বিল্পব বিজয় তালুকদার ঘটনাস্থল পরিদর্শনকালে সাংবাদিকদের জানান, নির্বাচনী সংহিসংতায় একজন মারা গেছেন।আমরা বেশ কিছু তথ্য পেয়েছি, মামলা প্রক্রিয়াধীন রয়েছে। জড়িতদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিষয়টি আমরা আন্তরিকতার সাথে দেখছি।

গজারিয়া নিউজ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s