মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটে হঠাৎ পুলিশের লাঠিচার্জ

রিকশাচালকের সঙ্গে এক পুলিশ সদস্যের বাকবিতণ্ডাকে কেন্দ্র করে মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাট এলাকায় হঠাৎ লাঠিচার্জ করেছে পুলিশ। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যা ৭টায় মুন্সীগঞ্জ লঞ্চঘাটে এ ঘটনা ঘটে। এতে মুহূর্তে ফাঁকা হয়ে যায় বিনোদন কেন্দ্র হিসেবে পরিচিত লঞ্চঘাটটি।

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, সন্ধ্যার দিকে এক ব্যক্তির সঙ্গে এক রিকশাওয়ালার তর্ক হয়। একপর্যায়ে ওই ব্যক্তি রিকশাওয়ালাকে ধাক্কা দিলে গরম পানি ছুড়ে মারেন রিকশাওয়ালা।

পরে জানা যায় রিকশাওয়ালা যাকে গরম পানি ছুড়েছিলেন তিনি পুলিশ সদস্য। কিছুক্ষণ পর গোয়েন্দা পুলিশের কিছু সদস্য লঞ্চঘাটে এসে রিকশাওয়ালাদের ও স্থানীয়দের ওপর এলোপাতারি লাঠিচার্জ করে।

স্থানীয়রা এর প্রতিবাদ করলে আরো পুলিশ এসে লঞ্চঘাট এলাকা খালি করে দেয়। স্থানীয় দোকানপাট বন্ধ হয়ে যায়। এ সময় ছুটির দিনে লঞ্চঘাট ও বেড়িবাঁধ এলাকায় বেড়াতে আসা মানুষের মধ্যে আতঙ্ক ছড়িয়ে পড়ে।

এ ঘটনার পর শহরের হাটলক্ষ্মীগঞ্জ এলাকায় রিকশাচালক, পুলিশ ও এলাকাবাসীর মধ্য ত্রিমুখী সংঘর্ষ হয়। এ ঘটনায় ৪ পুলিশ সদস্যসহ ৬ জন আহত হন। আহতরা হলেন, পুলিশ সদস্য মোহাম্মদ আজিজুল হক, মো. জাকির, মো. আজিজুল হক ও প্রতাপসহ ৬ জন।

এ বিষয়ে মুন্সীগঞ্জের পুলিশ সুপার জায়েদুল আলম বাংলানিউজকে বলেন, পুলিশ লাইনসের এক কনস্টেবলকে গরম পানি ঢেলে আহত করায় পুলিশের নবীন কিছু সদস্যদের সঙ্গে বিরোধ বাধে। স্থানীয়দের সঙ্গে বিরোধ হয়নি। আহত কনস্টেবল মুন্সীগঞ্জ সদর হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন।

বাংলানিউজটোয়েন্টিফোর