বেতকায় বাইক দুর্ঘটনা আহত সুমাইয়ার মৃত্যু

টঙ্গীবাড়ি উপজেলার বেতকায় বাইক দুর্ঘটনায় আহত স্কুল ছাত্রী সুমাইয়া আক্তার মারা গেছে। আট দিন পর ঢাকার একটি হাসপাতালে লাইফ সাটোর্টে থাকা অবস্থায় গতকাল বুধবার মৃত্যুর কোলে ঢলে পরে। বেতকা ইউনিয়ন উচ্চ বিদ্যালয়ের জেএমসি পরীক্ষার্থী সুমাইয়া আক্তারের মুত্যুতে এখানে শোকের ছায়া নেমে আসে। সহপাঠীরা কান্নায় ভেঙ্গে পরেন। চারিদিকে ক্ষোভের সঞ্চার হচ্ছে। জানাজার পরে সকলা সাড়ে ৯টার দিকে শিক্ষার্থী ও এলাকাবাসী সড়ক অবরোধ করে। বেতকা-ঢাকা সড়কের কুন্ডের বাজার পূর্ব কান্দাপাড়া পয়েন্টে এই অবরোধ সৃষ্টি করলে সড়কটিতে যান চলাচল বন্ধ হয়ে যায়। পরে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এতে প্রায এক ঘন্টা যান চলাচল বিঘিœত হয়।

গত ৫ অক্টোবার স্কুল থেকে বাড়ি ফেরার সময় বেতকা-ঢাকা সড়কের কান্দাপাড়া গ্রামের আবুল মেম্বারের বাড়ির কাছে তাকে মোটর বাইক চাপা দেয়। স্কুল ড্রেস পরা এই কিশোরী রক্তাক্ত অবস্থায় লুটিয়ে পরেন। তার মাথায় আঘাত লাগে। প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বিদ্যালয়টির পরিচালনা পরিষদের কর্মকর্তা তারিক হাসান লিউ জানান, এরএফ এল কোম্পানীর দু’জন মাঠ কর্মী দুই মোটারবাইক নিয়ে চলন্ত অবস্থায় কথা বলছিল। নিয়ন্ত্রণ হারিয়ে রাস্তার পাশ দিয়ে হাটতে থাকা এই স্কুল ছাত্রীর উপর তুলে দেয় বাইক। অবস্থা বেগতিক দেখে পরে তারা মোটর বাইক ফেলেই পালিয়ে যায়। বাইক দু’টি বেতকা ইউপি চেয়ারম্যানের জিম্মায় রয়েছে। সুমাইয়া পার্শ্ববর্তী দক্ষিণ রায়পুরা গ্রামের সেকান্দর হাওলাদারের কন্যা। কাতার প্রবাসী পিতা সেকান্দর হাওলাদারএকমাত্র সন্তানে দুর্ঘটনার খবরে দেশে ছুটে আসেন। তাঁর কন্যাকে বাঁচিয়ে রাখতে সবরকম প্রচেষ্টা চালান। কিন্তু একমাত্র সন্তান হারানোর শোকে জনাব হালদার এবং মিসেস হালদার এখন দিশেহারা। তাদের আহাজারিতে এলাকার বাতাশ ভাড়ি হয়ে উঠেছে। বৃহস্পতিবার সকালে কুন্ডের বাজার পূর্ব কান্দাপাড়া জামে মসজিদ প্রাঙ্গনে জানাজা শেষে তাকে স্থানীয় কবরস্থানে দাফন করা হয়।

টঙ্গীবাড়ি থানার ওসি আলমগীর হোসাইন জানান, এখনও মামলা হয়নি। মামলা হলে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়া হবে। বিদ্যালয়টির ম্যানেজিং কমিটির সভাপতি শাহ জালাল শিকদার ও বিদ্যালয়টির প্রধান শিক্ষক মো. মহিউদ্দিন আল মামুন জানান, অস্টম শ্রেণির এই ছাত্রীর এই অকাল মৃত্যুর ঘটনার মত যেন আর কোন মৃত্যু না হয় সে ব্যাপারে দৃষ্টান্ত মূলক ব্যবস্থা নিয়ে হবে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s