পৃথক ঘটনায় শিশুসহ তিন লাশ উদ্ধার

মুন্সীগঞ্জে পৃথক ঘটনায় তিন মৃতদেহ উদ্ধার করা করেছে পুলিশ। এদের দু’জনই শিশু। উদ্ধারকৃত মৃতদেহগুলো শনিবার মুন্সীগঞ্জ জেনারেল হাসপাতালে ময়না তদন্তের পর স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছে। সন্ধ্যায় পুলিশ এই তথ্য নিশ্চিত করেছে।

পুলিশ জানায়, মুন্সীগঞ্জ সদর উপজেলার মালিপাথর এলাকায় শুক্রবার সন্ধ্যায় মুক্তা আক্তার (১০) নামের এক শিশু আত্মহত্যা করে। স্বজনরা জানিয়েছে, দোকান থেকে চুরি করে চকলেট খাওয়ার অভিযোগে বকুনি দিলে অভিমান থেকে সে আত্মহত্যা করে। এদিকে একই উপজেলার আধারা এলাকায় নাহিদা আক্তার (১৪) নামের এক মাদ্রাসা ছাত্রী আত্মহত্যা করেছে। তার স্বজনরা জানিয়েছে, সে মানসিকভাবে কিছুটা ভারসাম্যহীন ছিল। সদর থানার সেকেন্ড অফিসার এসআই শাখাওয়াত হোসেন জানান, দু’জনই গলায় ওড়না পেছিয়ে নিজঘরে আত্মহত্যা করে। ময়না তদন্তের পর শনিবার স্বজনদের কআছে লাশ হস্তান্তর করা হয়েছে।

অপর ঘটনায় জেলার শ্রীনগর উপজেলার তিনগাঁও গ্রামের স্বামীর বাড়িতে গৃহবধু মিতু মন্ডল(২০) মারা যায়। শ্রীনগর থানার ওসি সাহিদুল রহমান জানান, শুক্রবার রাতে গৃহবধুর স্বামীর বাড়ির লোকজন মৃতদেহটি উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে রেখে পালিয়ে যায়। প্রাথমিকভাবে জানা যায়, এই গলায় ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। লাশটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য পাঠানো হয়েছে। বিষয়টি নিয়ে তদন্ত চলছে। ময়নাতদন্তের রিপোর্ট পাওয়ার পর বিস্তারিত জানা যাবে। তবে মৃত্যুর সঠিক কারণ এখনও নিশ্চিত করা যায়নি। এসব ঘটনায় স্ব স্ব থানায় পৃথক তিনটি অপমৃত্যু মামলা হয়েছে।

জনকন্ঠ

Leave a Reply

Please log in using one of these methods to post your comment:

WordPress.com Logo

You are commenting using your WordPress.com account. Log Out / Change )

Twitter picture

You are commenting using your Twitter account. Log Out / Change )

Facebook photo

You are commenting using your Facebook account. Log Out / Change )

Google+ photo

You are commenting using your Google+ account. Log Out / Change )

Connecting to %s